এইচটিএমএল

HTML ল্যাঙ্গুয়েজ এর ভবিষ্যৎ (ক্যারিয়ার হিসেবে html)

 

কম্পিউটারে যে সকল ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করা হয় তাদের মধ্যে এইচটিএমএল কে ভিত্তি হিসেবে ধরা হয়। কেননা HTML ছাড়া কখনই একটি ওয়েবসাইট তৈরী করা সম্ভব নয়। ক্যারিয়ার হিসেবে html কেমন হতে পারে?

আপনি কি কখনো কঙ্খাল দেখেছেন? হ্যাঁ মানুষের কঙ্কাল কিংবা অন্য কোন কিছুর হউক সমস্যা নাই, কঙ্কাল দেখতে কেমন বলুন তো?

না আছে তাতে কোন রক্ত মাংশ আর না তা দেখতে সুন্দর। বড় অদ্ভুত লাগে দেখতে, কি তাই নাহ্?

ঠিক একটি কঙ্কালের মত এইচটিএমএল হচ্ছে একটি ওয়েবসাইটের কঙ্কাল।

আজকে আমাদের আলোচনার বিষয়বস্তু হচ্ছে এই যে এইচটিএমএল; ক্যারিয়ার হিসেবে কতটা ভাল হবে? আমরা তাই জানার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ্।

প্রথমে জানা যাক,

 

 

এইচটিএমল আসলে কি?

এইচটিএমএল কি (What is HTML?)

Hyper Text Markup Language কে সংক্ষেপে HTML বলা হয়। একটি ওয়েবসাইটের বাহ্যিক অবয়ব তৈরীতে মূল ভিত্তি হিসেবে যে ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করা হয় তাকেই এইচটিএমএল বলে।

অনেক আগেকার দিনে যখন এইচটিএমল তৈরীই হয় নাই তখন কোন লেখাকে বিশেষভাবে ফুটে তোলার জন্য লেখার নিচে রেখা টানা হত। এটাকেই Hyper  বলে।

শুধু html শিখে কি ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব?

আর আমরা যা পড়তে পারি তাই Text যা কোন শব্দ কিংবা শব্দের সমষ্টি বোঝায়।

আবার, ওয়েবপেজের গঠন নির্ধারণ কিংবা প্রয়োজনীয় পরিবর্তন সাধনের পদ্ধতিই হচ্ছে Markup.

HTML এক প্রকারের মার্ক আপ ল্যাঙ্গুয়েজ। একটি বিল্ডিং তৈরী করতে যেমন প্রথমে ভিত্তি দিতে হয় ঠিক তেমনি একটি ওয়েবসাইট বিল্ড আপ করার জন্য একটি বাহ্যিক অবয়ব তৈরী করতে হয়।

ঠিক এই কাজটি করার মাধ্যমটিই হচ্ছে এইচটিএমএল।

 

ভাই আপনি বলবেন কি, Html কিভাবে শিখব ? আপনি মূলত তিনটি উপায়ে এইচটিএমএল শিখতে পারেন।

প্রথমত, অনলাইনে গুগল, ইউটিউবকে কাজে লাগিয়ে শিখতে পারেন।

দ্বিতীয়ত, অনলাইনের কোন ভাল মানের কোর্স অবশ্যই যাচাই করে তারপর নিয়েও শিখতে পারেন।

তৃতীয়ত, কোন ভাল মানের আইটি প্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স করেও আপনার এইচটিএমএল শেখার চাহিদা পূরণ করে নিতে পারেন।

যেটি আপনার জন্য সুবিধাজনক সেটি দিয়েই যাত্রা শুরু করুন।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন,

ক্যারিয়ার হিসেবে ওয়েব ডিজাইন নাকি ব্লগিং?

 

 

HTML ল্যাঙ্গুয়েজের স্টার্টিং কোড

<!Doctype HTML>

<html>

<head>

<title>এইচটিএমএল ল্যাঙ্গুয়েজের স্টার্টিং কোড</title>

এখানে বিভিন্ন স্টাইলশিটকে কল করা হয়।

</head>

<body> এখানে একটি ওয়েবসাইটের যাবতীয় কনটেন্ট লিখা হয়</body>

</html>

 

 

এইচটিএমএল ল্যাঙ্গুয়েজ কিভাবে কাজ করে?

একজন ভিজিটর যখন সার্ভারের নিকট কোন ফাইল এর জন্য রিকোয়েস্ট পাঠায় তখন ওয়েব সার্ভার ASCII কোডের মাধ্যমে ভিজিটর এর কম্পিউটারে স্ট্রিং পাঠায়।

ভিজিটর যে ব্রাউজার ব্যবহার করেন সেই ব্রাউজারে উক্ত স্ট্রিং ওয়েবপেইজ আকারে প্রদর্শিত হয়।

এভাবে খুব সহজ উপায়ে এইচটিএমএল কাজ করে থাকে।

এখানে ASCII এর পূর্ণরূপ হচ্ছে,

American Standard Code for Information Interchange

 

 

 

এইচটিএমএল ল্যাঙ্গুয়েজের প্রয়োজনীয়তা

একটি ওয়েবপেইজ তৈরীতে এইচটিএমএল হচ্ছে ভিত্তি। তবে এটি কোন পূর্ণাঙ্গ ল্যাঙ্গুয়েজ নয়। এর সাহায্যে আপনি কেবল মাত্র একটি স্ট্যাটিক ওয়েবসাইটই তৈরী করতে পারেন।

সেই স্ট্যাটিক পেইজকে সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্টের সাহায্যে বিভিন্ন ডিজাইন দিয়ে ডায়নামিক করে তুলতে পারেন অনায়াসেই।

যেহেতু ভিত্তি হিসেবে এইচটিএমএল তাই আপনি এই ল্যাঙ্গুয়েজ ছাড়া একটি ওয়েবসাইট তৈরীর কল্পনাও করতে পারেন না।

সুতরাং আমরা বলতে পারি, দালান কোঠা তৈরীতে যেমন ভিত্তি লাগে তেমনি একটি ওয়েবসাইট তৈরীর ভিত্তি হচ্ছে এইচটিএমএল।

 

তাহলে,

ক্যারিয়ার হিসেবে html কতটা উপকারী হতে পারে?

এইচটিএমএল শিখলে কি লাভ হবে?

কিংবা,

এইচটিএমএল এর ভবিষ্যৎ কি?

 

 

 

ক্যারিয়ার হিসেবে এইচটিএমল ল্যাঙ্গুয়েজ

আপনার ওয়েব ডিজাইন শেখার শুরুটায় হবে এইচটিএমএল দিয়ে। সুতরাং বুঝতেই পারছেন আপনি যখন এসএসসি পাস করেন তখন কর্ম জীবনে প্রবেশের প্রথম দ্বারের কাছাকাছি চলে আসেন। 

তাই তো?

ঠিক একইভাবে যখন এইচটিএমএল শিখবেন তখনই আপনার ইচ্ছা জাগবে একটি মকআপকে কিভাবে সুন্দর করা যায়। 

আর এই চিন্তা  থেকেই আপনি সিএসএস শেখা শুরু করে দিবেন। এক পর্যায়ে এইচটিএমএল এবং সিএসএস উভয় ক্ষেত্রেই আপনার দক্ষতা চলে আসবে।

বর্তমান বিশ্বের দিকে তাকালে আমরা দেখতে পাই যে একজন ওয়েব ডিজাইনার কিংবা ডিভেলপার এর বিশাল চাহিদা রয়েছে।

আর দিনকে দিন তা বেড়েই চলেছে।

আর আমরা জানি যে, ওয়েব ডিজাইনিং এর জন্য একটি অপরিহার্য উপাদান হচ্ছে HTML. কেননা এটি ছাড়া একটি ওয়েবপেইজ কল্পনাহীন।

লোকাল মার্কেটপ্লেস এ নজর দিলে দেখা যায় এর ব্যাপক চাহিদা। বিশ্বের প্রায় প্রতিটা কোম্পানি তাদের ব্যবসাকে বিস্তার করার জন্য বিশেষভাবে জোর দিচ্ছে একটি ওয়েবসাইটের দিকে।

তারই লক্ষ্যে তাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য গড়ে তুলছে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট। আর এর জন্য তারা বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে ডিজাইনার কিংবা ডিভেলপার হায়ার করছে।

যারা নির্দিষ্ট পারিশ্রমিকের বিনিময়ে সেই সব প্রতিষ্ঠানের জন্য ওয়েবসাইট তৈরী করে দিচ্ছে।

আপনি যদি একজন ভালমানের ওয়েব ডিজাইনার হতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই এইচটিএমএল এ পর্যাপ্ত জ্ঞান রাখতে হবে।

ক্যারিয়ার হিসেবে html

আমরা জানি একটি ওয়েবসাইট তৈরী করতে শুধুমাত্র যে এইচটিএমএলই লাগে তা কিন্ত নয়, সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্ট এমনটি পিএইচপির মত ল্যাঙ্গুয়েজেরও দরকার পড়ে।

তবে শুধুমাত্র এচটিএমএল এর উপর পর্যাপ্ত পরিমাণ কাজ অনাইন মার্কেটপ্লেসে আপনি পেয়ে যাবেন।

এইচটিএমএল এর উপর দক্ষতা অর্জন করে ঘরে বসেই অনলাইন থেকে আপনি অজস্র পরিমাণ অর্থ আয় করতে পারেন।

 

 

 

অনলাইনে HTML এর কি ধরণের কাজ পাওয়া যায়?

অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস যেমন, ফাইবার, আপওয়ার্ক বিল্যান্সার, পিপল পার আওয়ারসহ হাজারও মার্কেটপ্লেস রয়েছে যেখানে আপনি এইচটিএমএল এর অনেক কাজ পেয়ে যাবেন।

ক্লায়েন্ট আপনাকে একটি এইচটিএমএল টেমপ্লেট তৈরী করতে বলবে।অথবা তার এইচটিএমএল টেমপ্লেটে কোথাও কোডিং মিসটেক আছে কি না যাচাই করতে বলবে।

যদি কোন এরর অর্থাৎ ভুল থাকে তবে তা সংশোধন করে দেয়ার জন্য আপনাকে বলবে এবং তার জন্য একটি বাজেট নির্ধারণ করবে ক্লায়েন্ট।

ভাই এইচটিএমএল টেমপ্লেট আবার কি?

এইচটিএমল এবং সিএসএস ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে যখন একটি ওয়েব পেইজ তৈরী করা হয় তখন তা এইচটিএমএল টেমপ্লেট হিসেবে পরিচিত। 

এখানে কোন ফাংশন থাকে না। ওয়েব সাইটটি দেখতে কেমন হবে এর কোন অংশে কি থাকবে অর্থাৎ হেডারে কি  থাকবে, ফুটারে কি থাকবে, সেই সাথে সাইডবার দেখতে কেমন?

এসব বিষয় নির্ধারণ করবে এইচটিএমএল এবং সিএসএস। সোজা কথা এইচটিএমএল একটি ওয়েব পেজের নকশা আর সিএসএস তার প্রাণ। 

ফলে ওয়েব পেইজ এর নান্দনিক বিকাশ ঘটে থাকে। তবে শুধু এইচটিএমএল শিখে আপনি খুব বেশি পরিমাণ আয় করতে পারবেন না।

আপনি ১৫ দিনে এইচটিএমএল শিখতে পারেন + ২৫ দিনে সিএসএস শিখতে পারেন। এটা সম্ভব? হ্যাঁ এটা সম্ভব। 

কেননা মানুষ ইচ্ছে অনেক কিছুই করতে পারে। আল্লাহ পাক মানুষের মগজে এত বুদ্ধি দিয়েছেন যেখানে কয়েকটা কম্পিউটার ফেইল মারবে নির্ঘাত

 

 

 

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডিভেলপমেন্ট (জাদুকরী টিপস)

 

শেষকথা,

অনেক সহজ একটি ল্যাঙ্গুয়েজ এইচটিএমএল। আপনি শুরুর দিকে এটি শিখেই অনলাইন থেকে আয় করতে পারেন। পর্যায়ক্রমে সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্টের উপর দক্ষতা অর্জন করতে থাকুন।

দেখবেন এক সময় একজন ভাল মানের ওয়েব ডিজাইনার হয়ে গেছেন। এর পর চাইলে আপনি বুটস্ট্র্যাপ, পিএইচপি, লারাভেল শিখতে পারেন।

ফলে একজন ওয়েব ডিভেলপার হিসেবে নিজেকে বিশ্বের হাজারো ডিভেলপারের মাঝে গড়ে তুলতে পারবেন।

একজন সফল ওয়েব ডিভেলপার হয়ে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে দেশের উপকারে সামিল হউন এই প্রত্যাশায়

আজ এ পর্যন্তই।

দেখা হবে পরবর্তীতে তথ্য প্রযুক্তির নতুন কোন বিষয় নিয়ে। সে পর্যন্ত ভাল থাকেন, সুস্থ্য থাকেন। শুভ কামণা।

আল্লাহ্ হাফেজ।

2 thoughts on “HTML ল্যাঙ্গুয়েজ এর ভবিষ্যৎ (ক্যারিয়ার হিসেবে html)”

  1. এইচটিএমএল শিখে কি পরিমান আয় করা যাবে যদি জানাতেন?

    1. ধন্যবাদ কমেন্ট করার জন্য। শুধু এইচটিএমএল শিখে আপনি খুব বেশি পরিমাণ আয় করতে পারবেন না। পর্যায়ক্রমে সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্ট শিখুন। প্রতি মাসে অন্তত ১৫-৩০ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন অনায়াসেই।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *