seo-backlink

ব্যাকলিংক কি এবং কিভাবে ব্যাকলিংক তৈরি করবেন

ওয়েবসাইট র‌্যাঙ্কিং- এ ব্যাকলিংক খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে। তবে এটা কিছুটা ঝামেলার বা বিরক্তিকর কাজ। আজকে আমরা দেখবো ব্যাংকলিংক কি আর কিভাবে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরী করতে হয়?

নতুনদের অনেকেই সঠিকভাবে ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারছেন না। আর করলেও তারা এমন ওয়েবসাইট থেকে তৈরি করেন যেখান থেকে তারা কোনো সুবিধা পায় না। 

 

অনেকেই আবার জানেন না কীভাবে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করা যায়। একজন ব্লগারের এই সমস্যাগুলো মাথায় রেখেই এই লেখাটি লিখেছি।

 

এই আর্টিকেলে, আমি  5 টি উপায় বলেছি,যা আপনাকে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরির জন্য ওয়েবসাইট খুঁজে পেতে ও লিংক করতে সাহায্য করবে। 

 

ব্যাকলিংক কি? (What is Backlink) ও কেন প্রয়োজন

অন্যের ওয়েবসাইট থেকে আমাদের ওয়েবসাইট বা ওয়েবপেজের লিংক আসে সেই লিংকটিকে ব্যাকলিংক বলে।

সার্চ ইঞ্জিনে ভালো র‍্যাঙ্কিং পেতে ব্যাকলিংক যে বেশ কাজে দেয় সেটা আমাদের সকলেরই জানা। 

 

ব্যাকলিংকগুলি এসইও-এর জন্য বিশেষভাবে মূল্যবান কারণ এটিকে “আস্থার ভোট” হিসেবে দেখা হয়। এই ভোটগুলির প্রতিটি সার্চ ইঞ্জিনকে সংকেত দেয়- “এই কন্টেন্টটি মূল্যবান, বিশ্বাসযোগ্য এবং দরকারী”৷ 

 

ব্যাকলিংক তৈরি করার অনেক উপায় আছে। তবে সব ব্যাকলিংকই র‌্যাঙ্কিংয়ে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে না, কিছু ব্যাকলিংক করলে র‌্যাঙ্কিং কমে যায়।

আবার, সব সাইটের ব্যাকলিংক এ সমান লাভ দেয়না। ভালো, ওয়েবসাইট থেকে লিংক নিতে পারলে ভাল লিংক জুস পাস হবে।  

 

যেকোনো ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরি করার সময়, আপনাকে সেই ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথোরিটি , পেজ অথোরিটি এবং স্প্যাম স্কোর পরীক্ষা করতে হবে।

আর, নিশ(niche) রিলেটেড লিংক করাও উচিত না।  

 

ব্যাকলিংকের প্রকারভেদ (Types of Backlink)

তাদের মানের উপর ভিত্তি করে, ব্যাকলিংক প্রধানত দুই ধরনের, একটি Nofollow এবং অন্য Dofollow।

 

ডুফলো ব্যাকলিংক (DoFollow Backlink)

Dofollow ব্যাকলিংক হল এমন ব্যাকলিংক যা লিংক জুস পাস করে এবং সার্চ ইঞ্জিন এই ধরনের লিংককে গুরুত্ব দেয়।

আপনার ওয়েবসাইট যদি কোনো ওয়েবসাইট থেকে Dofollow ব্যাকলিংক পায়, তাহলে এটি আপনার ওয়েবসাইটের র‍্যাঙ্কিংকেও উন্নত করে।

Dofollow ব্যাকলিংক সার্চ ইঞ্জিনকে নির্দেশ করে যে এই ওয়েবসাইটে দেওয়া বিষয়বস্তু নির্ভরযোগ্য।

 

Dofollow Backlink এর কোন প্রকার ট্যাগ নেই। এর গঠন নিম্নরূপ-

<a href= “ URL”> লিংক টেক্সট বা এঙ্কর টেক্সট</a>

 

নোফলো ব্যাকলিংক (NoFollow Backlink)

Nofollow ব্যাকলিংক কোন প্রকার লিংক জুস পাস করে না, সার্চ ইঞ্জিন এই ধরনের লিংককে খুব একটা গুরুত্ব দেয় না।

আপনি যদি যেকোন ওয়েবসাইট থেকে Nofollow ব্যাকলিংক পান তবে এটি আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আনতে পারে কিন্তু আপনি র‌্যাঙ্কিংয়ে তেমন সুবিধা পাবেন না।

 

নো-ফলো ব্যাকলিংকের একটি নো-ফলো ট্যাগ রয়েছে, এর গঠন নিম্নরূপ –

<a href=”URL” rel = “nofollow “> লিংক টেক্সট</a>

 

কিভাবে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করবেন 

এই পর্যন্ত আর্টিকেলটি পড়ার পরে, আপনি নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন ব্যাকলিংক কী। এখন আর্টিকেলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশটি শুরু হতে চলেছে যেখানে আমরা আপনাকে শিখাব কিভাবে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করতে হয়।

 

নিশ সাইট থেকে ব্যাকলিংক নেওয়ার বিষয়ে এসইও এক্সপার্টরা অনেক গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। ভালোমানের নিশ সাইট থেকে একটি  ব্যাকলিংক 1,000টি নিম্ন-মানের ব্যাকলিংকের চেয়ে বেশি শক্তিশালী হতে পারে।

তাই হাই-অথরিটি নিশ ওয়েবসাইট থেকে কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করার চেষ্টা করুন। 

 

আপনি নীচে উল্লিখিত পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করে আপনার ব্লগের জন্য হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করে ব্লগের র‌্যাঙ্কিং উন্নত করতে পারেন।

 

১। গেস্ট পোস্টিং করে মানসম্পন্ন ব্যাকলিংক তৈরি করুন

গেস্ট পোস্ট নিশ রিলেভেন্ট হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করার জন্য সেরা উপায়। গেস্ট পোস্টিং বলেতে অন্যের ওয়েবসাইটে আর্টিকেল পোস্টিং পাবলিশ করা বুঝায়।

এর জন্য ওয়েবসাইটের মালিকের সাথে ইমেল, ফোন বা সোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে যোগাযোগ করতে হবে।

যদি সেই ওয়েবসাইট অতিথি পোস্টগুলি গ্রহণ করে, তাহলে আপনি সেই ওয়েবসাইটের জন্য একটি অনন্য আর্টিকেল লিখতে পারেন৷ ওই কন্টেন্টের মধ্যে থেকে বা author bio সেকশন থেকে Dofollow ব্যাকলিংক পেতে পারেন। 

 

গেস্ট পোস্টিং সাইট খুজতে নিচের এডভান্স সার্চ কুয়ারিগুলো ব্যবহার করতে পারেনঃ 

  • keyword intitle:”write for us”
  • Keyword in title:” contribute to”
  • Keyword in title:”submit” + inurl: blog
  • Keyword “submit a guest post”
  • Keyword inurl:/guest-post/
  • Keyword “guest post”
  • Keyword “accepting guest posts”
  • Keyword “guest article”
  • Keyword “become a contributor”

 

২। সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাকলিংক তৈরি করুন

হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করার আরেকটি উপায় হল সোশ্যাল মিডিয়া থেকে লিংক নেওয়া। আমি কিন্তু সোশ্যাল শেয়ারের কথা বলছি না। 

 

সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা বিজনেস অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে এবং আপনার ওয়েবসাইটে একটি লিংক যুক্ত করতে পারেন। 

 

যদিও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আপনি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে Nofollow ব্যাকলিংক পাবেন। তবে লোকাল এসইও করলে এই ধরনের ব্যাকলিংক ভালোফল দিবে। 

 

সোশ্যাল মিডিয়া সাইট লিস্ট লিখে গুগলে সার্চ করলে একশ’ র বেশি ওয়েবসাইট পাবেন। তবে বেশিরভাগ স্পামি ও নিম্নমানের।

নিচের সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারেন।  

  • ফেসবুক পেজ 
  • Pinterest
  • লিংকড-ইন
  • YouTube
  • টুইটার
  • Reddit  ইত্যাদি

 

৩। ফোরাম ওয়েবসাইটে ব্লগ ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করুন

ফোরাম ওয়েবসাইটে ব্যবহারকারী গণ প্রশ্ন করা ও প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেন । Quora হল সবচেয়ে জনপ্রিয় ফোরাম ওয়েবসাইট।

Quora-তে আপনি যে নিশ নিয়ে কাজ করেন না কেনো সার্চ দিয়ে প্রশ্ন পাবেন। ওই  প্রশ্নের করা উত্তর দেবার সময় আপনার ওয়েবসাইটের লিংকটি দিতে পারেন।  

 

প্রথমে, আপনি Quora-এ আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন এবং আপনার নিশ রিলেটেড প্ল্যাটফর্ম ফলো করুন। যখন কেউ কোন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করে, আপনি উত্তরটি দিন এবং আপনার পোস্টের লিংক দিতে পারবেন। এইভাবে, Quora এ ব্যাকলিংক তৈরি করে ভালো ট্রাফিক পাবেন ।

 

 এটি ছাড়াও, আপনি আপনার নিশ সম্পর্কিত অন্যান্য ফোরাম ওয়েবসাইটগুলিতে একাউন্ট তৈরি করুন ও সেখানে একই প্রসেস অবলম্বন করে ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারেন।

৪। ওয়েব ২.০ ব্যাকলিংক তৈরি করুন

আমরা জানি ওয়েব ২.০ ওয়েবসাইটে সহজে ও বিনামূল্যে সাইট তৈরি ও আর্টিকেল পোস্ট দেওয়া যায়।  ওয়েব ২.০ ব্যাকলিংক তৈরি করতে প্রথমে, আপনাকে এই  ওয়েব ২.০ সাইটে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে।

তারপর, একটি ফ্রি ডোমেইন নেম নিয়ে সাইট ডিজাইন করে ফেলতে হবে। এই কাজ দুইটি হয়ে গেলে আপনার নিশ রিলেটেড আর্টিকেল লিখে ও পাবলিশ করতে হবে। এই আর্টিকেল থেকে আপনি ডুফলো লিংক নিতে পারবেন।

 

কিছু ওয়েব ২.০ সাইট হলোঃ 

  • blogger.com
  • WordPress.Com
  • Tumblr.com
  • Weebly.com
  • Wix.com, ইত্যাদি। 

 

প্র টিপসঃ বর্তমান সময়ে ওয়েব ২.০ ইনডেক্স করান বেশ ঝামেলার। তাই ভালোমানের ৫ -৭টি কন্টেন্ট, ইমেজ দিলে ভাল ও about us , contact us পেজগুলো তৈরি করে নিবেন।

আর এর পরেও ইনডেক্স না হলে এই সাইটগুলোর সোশ্যাল শেয়ার, ব্যাকলিংক করতে হবে।

   

৫। কমেন্ট ব্যাকলিংক তৈরি করুন

 

ব্যাকলিংক তৈরির পঞ্চমটি উপায়টি হল ওয়েবসাইটের কমেন্ট সেকশন থেকে ব্যাকলিংক নেওয়া। আপনি আপনার ব্লগ পোস্টের সাথে সম্পর্কিত (একই বিষয়ে বা কাছাকাছি বিষয়ে) অন্য ওয়েবসাইটের পোস্টে মন্তব্য করে ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারেন।  

 

নিশ রিলেটেড কমেন্ট সাইট খুজতে, গুগলের এডভান্স সার্চ ব্যবহার করতে পারেন। 

  • Keyword + “add your comment”.
  • Keyword + “submit your comment”.
  • Keyword + “add comment”.
  • Keyword + “submit comment”

* keyword এর যায়গায় আপনার টার্গেটেড কিওয়ার্ডটি দিতে হবে।   

এই পদ্ধতিতে ব্যাকলিংক তৈরি করা আসলে ট্রিকি। কমেন্ট করার সময় অবশ্যই মানসম্মত ও ভ্যালুয়েবল কমেন্ট করতে হবে।

আমরা যদি এটাকে খাটি বাংলায় বলি তাহলে,  হুদাই! “যা লিখছেন ভাল লিখছেন” , বা  “আপনার ইনফরমেশন এর জন্য ধন্যবাদ”  এর মতো করে স্পামি কমেন্ট না করে একটু সময় নিয়ে আর্টিকেল পড়ে, মানসম্মত কমেন্ট করুন। 

 

যেমনঃ প্রশ্ন করতে পারেন বা এই বিষয়ে আপনার পার্সোনাল মতামত, অভিজ্ঞতা বা টিপস থাকলে শেয়ার করতে পারেন। 

 

ওয়েবসাইট র‌্যাঙ্কিংয়ের জন্য Dofolllow ব্যাকলিংক গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু কমেন্ট ব্যাকলিংক সাধারনত নোফলো ব্যাকলিংক দেয়। কিন্তু এটি কিওয়ার্ড রেঙ্কিং এ গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখতে পারে। 

 

প্রো টিপসঃ গুগলের স্পাম আপডেটে ধরা না খেতে চাইলে, এঙ্কর টেক্সট হিসেবে কিওয়ার্ড ব্যবহার না করাই ভালো, আর করলে ৫% এর কম করবেন। 

 

মন্তব্য 

এই আর্টিকেলটির মধ্যে, হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক সম্পর্কে সামান্য কিছু ধারনা দিতে চেষ্টা করেছি। এই পদ্ধতিগুলি ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারবেন। 

 

ll Links Are Not Created Equal, যত্নসহকারে সময় নিয়ে ব্যাকলিংক করা উচিত। লিংকএবোল এসেট তৈরি করতে হবে, যাতে ন্যাচারাল ভাবে মানুষ আপনার সাইটকে রেফারেন্স লিংক হিসেবে ব্যবহার করে। 

 

আপনার যদি এখনও ব্যাকলিংক সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকে তবে আপনি নীচের কমেন্ট বক্সে জিজ্ঞাসা করতে পারেন।

আর ভালোলাগল বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *