files-recover

ডিলিট ফাইল পুনরুদ্ধার করুন সবচেয়ে সহজ উপায়ে!

 

মোবাইল কিংবা কম্পিউটার থেকে কোন গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট ডিলিট হয়ে গেছে? ভাবছেন সেগুলো অনেক জরুরী ছিল। এবার ডিলিট ফাইল পুনরুদ্ধার হবে সবচেয়ে সহজ উপায়ে!

সত্যিই কি তাই?

জ্বি, পড়তে থাকুন উত্তর পেয়ে যাবেন।

অথচ হারিয়ে যাওয়া ফাইল ফিরে পাচ্ছেন না। তাহলে চলুন জেনে নিবেন ডিলিট হওয়া ফাইল পুনরুদ্ধার এর সেরা ট্রিপ্স।

আমরা অনেক সময় অনেক ভাবে বুঝে না বুঝে আমাদের প্রয়োজনীয় ফাইল গুলো ডিলিট করে থাকি। কিন্তু এক সময় দেখা যায় সেই ফাইলগুলো অত্যন্ত দরকারী ছিল।

ডিলিট করার কারণে আমরা ফাইলগুলো আর খুঁজে পাইনা তখন ভাবনাই পড়ে যাই। আর ভাবতে থাকি যে সেই ফাইলগুলো কিভাবে ফিরে আনবো?

আসলেই কি হারানো ফাইল কিংবা ডকুমেন্ট ফিরে পাওয়া সম্ভব? আমার প্রয়োজনীয় কিছু ডকুমেন্ট ফোন থেকে হারিয়ে গেছে,

আমি কি এখন সেই গুরুত্বপূর্ণ ডাটা ফিরে পেতে পারি?

জ্বি, অবশ্যই এটা সম্ভব।

 

আপনার হারিয়ে ফেলা File কিভাবে ফিরে আনবেন-

আমরা প্রায়ই প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে কিংবা কারণে-অকারণে সেভকৃত ফাইল মুছে ফেলে থাকি। অন্য এক সময় বুঝতে পারি যে সেগুলো কতটা দরকার ছিল।

প্রধানত ডিলেট করা File পুনুঃরায় নিয়ে আসার জন্য আমরা Recovery Software  গুলো ব্যবহার করতে পারি।

এই Recovery সফটওয়্যার দিয়ে আগের Delete Document & File ফিরে আনা সম্ভব।

যে স্থান থেকে মুছে ফেলা হয়েছে সেই স্থানে যদি অন্য কোন ফাইল সেটার পরিবর্তে স্থাপন করা হয় তাহলে সেটা আর ফেরে আনা সম্ভব হবেনা।

আর তাছাড়া আপনি এই রিকভারি করেই ফিরে পেতে পারেন সমস্ত হারানো তথ্য।

 

মুছে ফেলা File ফিরে পাওয়ার উপায় –

আপনি কি মোবাইল থেকে ছবি ডিলিট করে ফেলছেন? মানে, আপনার মোবাইল থেকে ছবি ডিলিট হয়ে গেছে?

তাহলে চিন্তা ছেড়ে দিন আর দেখুন…

যদি আপনি উইন্ডোজ ফাইল Recovery দিয়ে হারানো ডকুমেন্ট বা ডিলেট হওয়া তথ্য পেতে চান তাহলে কম্পিউটারে ২০০৪ উইন্ডোজ কিংবা ১০ বিল্ট ইন কিংবা তার উপরের ভার্সন দিয়ে Install করতে হবে।

কেননা, আপনার কম্পিউটারে ১০ উইন্ডোজ এর মে ২০২০ বা পরের ভার্সনের ফাইল আপডেট থাকা জরুরি।

আপনি Microsoft File Recovery computer থেকে ব্যবহার করে হরিয়ে যাওয়া তথ্য পুনরুদ্ধার করতে পারবেন।

আর সেটা নির্ভর করবে আপনার ড্রাইভের ধারন ক্ষমতার উপর। কেননা, ডিলিটকৃত ফাইল computer এর হার্ডডিক্স ড্রাইভ থেকে সঙ্গে সঙ্গে Delete হয় না।

তবে SSD এর ক্ষেত্রে তা সঙ্গে সঙ্গে ডিলিট হয়ে যায়। 

 

উইন্ডোজ ব্যবহৃত কম্পিউটার থেকে মুছে যাওয়া ফাইল যেভাবে উদ্ধার করবেন-

আপনি ডিলিট হওয়া ফাইল রিকভারের পদ্ধতি খুঁজছেন? সো বন্ধুরা আমরা জানতে চলেছি,

ডিলিট ফটো রিকভারি সফটওয়্যার  সম্পর্কে। পড়তে থাকুন আর নিত্যটিউনের সাথৈই থাকুন।

 

যদি আপনি চান কম্পিউটার থেকে ডিলিট হওয়া ফাইল ফেরত পেতে তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন টুল বা সফটওয়্যারের সাহায্য নিতে পারেন।

তবে আমরা মাইক্রোসফটের নিজস্ব অফিসিয়াল সফটওয়্যার ব্যবহার করে হারানো ফাইল, ডকুমেন্ট কিংবা ছবি ফিরে পাওয়ার পদ্ধতি জানবো।

প্রথমতো কাজটি করার জন্যে Microsoft স্টোর থেকে আমাদের Windows File Recovery install করে নিতে হবে।

মাইক্রোসফট স্টোর Open হওয়ার পর উইন্ডোজ ফাইল রিকভারী লিখে Search দিলেই আপনি উল্লেখিত File Recovery Software পেয়ে যাবেন।

তারপর Software টি ইনস্টোল করে নিন।

এখন স্টার্ট মেনু থেকে উইন্ডোস ফাইল রিকভারী Option খুজে বের করে সেখানে Run as Administrator সিলেক্ট করুন।

এরপর কম্পিউটারের যে ড্রাইভ এর ভিতর থেকে ফাইল গুলো ডিলিট হয়েছে সেই ডিলিটকৃত ফাইল উদ্ধার করতে পারবেন।

উদ্ধারকৃত ফাইল সমূহ যে ড্রাইভে সেভ করবেন তা Winfr দ্বারা সিলেক্ট করতে হবে। উদাহরণ স্বরূপঃ

Winfr source drive: destination-drive:[/switches]

যখন আপনি কমান্ডটি রান করাবেন আর যেখানে রিকভার ফাইল সেভ করবেন, সেখানে Recovery-[date & time]এই নামে একটি ফোল্ডার তৈরি হবে।

সেই ফোল্ডারে আপনার উদ্ধারকৃত File গুলো পেয়ে যাবেন।

তো বন্ধুরা জেনে তো গেলেন যে কম্পিউটার দিয়ে কিভাবে হারানো ফাইল কিংবা ছবি ফিরে পাবেন। চলুন এবার জেনে নিবেন কোন সফটওয়্যারটি এই কাজের জন্য সেরা?

 

ডিলিট হওয়া ছবি উদ্ধার করার কয়েকটি প্রচলিত এবং অভিনব পদ্ধতি-

আসলেই কি ডিলিট হওয়া ছবি ফিরে পাওয়ার উপায় আছে? আমাদের মোবাইল থেকে ডিলেট হওয়া ছবি কিভাবে পাব? আপনি কি কোন উপায় বলতে পারেন?

জ্বি বস, দেখুন…

ডিলিট হওয়া ছবি ফিরে পাওয়ার সফটওয়্যার-
  • গুগল ফটো (Google Photos)

এটি গুগলের একটি অনন্য সেবা। এর মাধ্যমে আমরা আমাদের পছন্দের ফটো সমূহ সেভ করে রাখতে পারি। 

কোন কারণে আমাদের ফাইলগুলোর যদি কোনরূপ সমস্যা দেখা যায় তবে এর মাধ্যমে ফাইল রিকভারী পাওয়া যায়।

কোন কারণে ফোনটি হারিয়ে গেল তখন কিন্তু এই ফাইলগুলো আমরা ফিরে পেতে পারি। তবে এই ডকুমেন্টগুলো ফিরে আনার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু কাস্টমাইজ করে নিতে হবে।

এর সাহায্যে আপনারা মোটামুটি ১৫ গিগাবাইট পর্যন্ত ছবি কিংবা কোন ডকুমেন্ট ধারণ করতে পারবেন।

তবে আপনারা যারা আইফোন ব্যবহার করেন তবে আইটিউন ব্যবহার করতে ভুলবেন না। তার মানে আপনি আইটিউন ছাড়া আইফোনে ডাটা রিকভারী করতে পারবেন না।

 

 

  • গুগল ড্রাইভ (Google Drive)

এ পর্যন্ত গুগলের ফাইল সংরক্ষণের যতগুলো পদ্ধতি দেখেছি আমার কাছে সবথেকে সেরা মনে হয়েছে গুগল ড্রাইভ।

আপনি জানেন কি গুগল ড্রাইভ কিভাবে ব্যবহার করতে হয়? 

এর জন্য আপনার শুধু একটা মেইল এর দরকার হয়। মেইল কানেক্ট করে আপনাকে ড্রাইভ স্টোর সেট করে নিতে হয়। 

তবেই আপনি এর মাধ্যমে ডিলিট ফাইল পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

আপনি তখনই এখান থেকে কোন ফাইল ফিরে পাবেন যখন এখানে কোন ফাইল স্টোর করে রাখবেন।

সো যখন অনলাইন ইউজ করবেন তখন গুগল ড্রাইভ এ আপনার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টগুলো জমা রাখবেন।

আচ্ছা এটি কি ডিলিট হওয়া ভিডিও ফিরে পাওয়ার উপায় বলে মনে করেন? হুম, এর মাধ্যমে আপনি ডিলিট হওয়া যে কোন ভিডিও ফিরে পেতে পারেন।

 

how do you recover deleted photos?

 

  • ডিলিটেড ফটো রিকভারী সিস্টেম (Deleted Photo Recovery)

এটি একটি এন্ড্রয়েড সফটওয়্যার। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ফোন থেকে হারানো যে কোন ডকুমেন্ট যেমন, আপনার প্রেমের ইতিহাস, জীবনের কোন স্বরণীয় ঘটনা, কোন ছবি কোন অডিও কিংবা ভিডিও।

তবে এটি শুধুমাত্র এন্ড্রয়েড সিস্টেমএই ব্যবহার করতে পারবেন। সো এটা হচ্ছে একটা সীমাবদ্ধতা।

  • ডিস্ক ডিগার ফটো রিকভারী সিস্টেম (Disk Digger Photo Recovery)

হারানো ফাইল পুনরুদ্ধার করার জন্য এটিও অন্যতম একটি সফটওয়্যার। সিম্পলি গুগল প্লে-স্টোর থেকে একে ডাউনলোড করে নিন। 

 

  • রিস্টোর ইমেজ (Restore Image)

এই অ্যাপসটিকে আপনি গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন। এটি অনেক সহজ একটি সফটওয়্যার। 

 

Delete photo recovery

 

ইনস্টল করার পর রিস্টোর ইমেজ নামে যে অপশন পাবেন সেখান থেকে ডিলিট ফাইল পুনরুদ্ধার করতে পারবেন।

 

তাহলে,

এগুলোর মাধ্যমে আমার হারানো ফাইল রিকভার করবো কিভাবে?

এর জন্য আপনাকে আপনাকে গুগলের নির্ধারীত একাউন্ট অর্থাৎ যে মেইল ব্যবহার করে আপনি একাউন্ট করেছিলেন তা ব্যবহার করতে হবে। 

লগ ইন করুন আর আপনার হারানো ফাইলগুলো গুগল ফটোস/গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড করে নিন।

সো বন্ধুরা আমরা জেনে গেলাম ডিলিট হওয়া ছবি ফিরে পাওয়ার সফটওয়্যার সম্পর্কে। আশা করছি আর কোন সমস্যা হবে না।

অর্থাৎ,

মোবাইলের ডিলিট করা ছবি ফিরিয়ে আনার উপায় সম্পর্কে আর কোন মন্তব্য রইল না।

আচ্ছা তাহলে কি? 

Whatsapp থেকে ডিলিট হওয়া ছবি ফিরিয়ে আনার উপায় আছে?

 

হোয়াট্অ্যাপ সম্পর্কে জানুন,

হোয়াট্সঅ্যাপ কে আবিস্কার করেন? হোয়াট্সঅ্যাপ নিয়ে যত কথা!

 

ডিলিট হওয়া ফাইল ফিরে পাওয়ার সেরা উপায়

 

আমাদের শেষ কথা!

আসলে একটি জরূরি ফাইল ইচ্ছাকৃতভাবে কিন্তু কেউ ডিলেট করে না। ভুলবশত বা অসাবধানতার বশে আমরা এ ধরণের কাজগুলো করে থাকি।

আর এরূপ সমস্যা হতে পারে ভেবেই কম্পিউটার উন্নয়নের কাজ করা স্বনামধন্য বিজ্ঞানীরা কিছু কৌশল রেখে গেছেন।

এখন অনেক সফটওয়্যার পাওয়া যায় যার মাধ্যমে আপনি হারানো ফাইল পুনরুদ্ধার করতে পারেন। তবে এই সফটওয়্যার গুলোর বেশির ভাগ কিন্তু পেইড। 

ফ্রিতে আমি খুবই কম পরিমাণে ডাটা ফিরে পেতে পারেন। আপনার হারানো ফাইল যদি ১০ জিবি হয়ে থাকে তবে আপনাকে কিন্তু পেইড সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে।

তবে গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করলে এরূপ ঝামেলায় আপনাকে পড়তে হবে না।

আমার দীর্ঘ বিশ্বাস উপরের আলোচার মাধ্যমে আপনার সামান্য হলেও উপকার হয়েছে। 

সুতরাং বন্ধুরা আজ এ পর্যন্তই । জীবন ও প্রযুক্তির নিত্য নতুন পোস্ট পেতে নিত্যটিউন ওয়েবসাইটের সাথেই থাকুন। 

আপনাদের সকলের সু-সাস্থ্য ও কল্যাণ কামনা করে আজ এ পর্যন্তই বিদায় নিচ্ছি। 

আল্লাহ্ হাফেজ।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *