নিত্যটিউন-এ-নতুন-রাইটারদের-প্রতি-নির্দেশনা

নিত্যটিউন-এ নতুন রাইটারদের প্রতি নির্দেশনা

  • Post author:

প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি সবাই মহান আল্লাহর অশেষ মেহেরবাণিতে ভাল আছেন। পোস্টের শিরোনাম দেখে নিশ্চয় ধারণা করতে পারছেন, নিত্যটিউনে যারা আর্টিকেল রাইটিং করে ভালো পরিমাণ অর্থ আয় করার স্বপ্ন দেখছেন তাদের জন্যই মূলত আমাদের আজকের এই পোস্ট। সত্যিকার অর্থে অনলাইন থেকে আয় করা আমাদের বাস্তব জীবনের মতই কঠিন একটি বিষয়। তবে উপযুক্ত গাইডলাইন এবং পর্যাপ্ত ধৈর্য থাকলে এ দু-এর সমন্বয়ে আপনি অনলাইন থেকে হাজার হাজার নয় বরং লক্ষ্যাধিক পর্যন্ত আয় করতে পারেন। তাহলে চলুন আমরা কথা না বাড়িয়ে বরং নিত্যটিউন-এ আর্টিকেল রাইটিং এর নিয়মগুলো দেখে নিই। 

প্রিয় অথর, সফলতার জন্য আপনাকে লেগে থাকার মানসিকতা তৈরী করতে হবে। আমাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট লেখার জন্য আপনাকে পোস্ট নীতিমালা অবশ্যই অনুসরণ করে পোস্ট লিখতে হবে। আশা করছি, নিত্যটিউন রাইটার নির্দেশনা আপনাকে কোয়ালিটি পোস্ট লিখতে বিশেষ সহায়তা প্রদান করবে। 

নতুন রাইটারদের অবশ্যই পালনীয় শর্ত

১. প্রতিটি পোস্ট কয়েকবার রিভিউ করে শতভাগ নিশ্চিত হয়ে পাঠাবেন।

২. পোস্টের মধ্যে বানানের দিকে বিশেষ খেয়াল রাখবেন। আমরা কোন ভুল বানান গ্রহন করি না। প্রকৃত অর্থে, ভুল শব্দ প্রয়োগ এবং ভুল বানান দুটোই একজন কোয়ালিটি সম্পন্ন রাইটার-এর প্রধান অন্তরায়।

৩. আমরা পোস্টের কোন ত্রুটি ধরিয়ে দিলে তা তৎক্ষণাৎ ঠিক করে পাঠিয়ে দিতে হবে এমন কোন বাধ্যবাধকতা নেই। তবে অবশ্যই তা দ্রুত করা চেষ্টা করবেন। মনে রাখবেন আপনি ফ্রিল্যান্সিং করছেন কারো অধিনস্ত হয়ে নয় বরং কারো সহযোগী হয়ে। সুতরাং সময় নিয়ে ভুলগুলো সংশোধন করে আমাদেরকে জানিয়ে দিবেন।

৪. নতুন রাইটাররা দেখা যায় অনলাইনের বিভিন্ন প্ল্যাজিয়ারিজম চেকার দ্বারা চেক করে পোস্ট পাঠিয়ে দেন। ফলে কোয়ালিটি সম্পন্ন চেকার দ্বারা চেক না করার কারণে তাদের পোস্টগুলো শতভাগ ইউনিক হয় না। এসব সমস্যা এড়াতে আপনি আমাদের ওয়েবসাইটের মেন্যুবার থেকে আর্নিং প্রোগ্রাম এ থাকা চেকার দিয়ে প্ল্যাজিয়ারিজম চেক করে নিন। আশা করছি ৯৯.৯৯% সলভ হয়ে যাবে।

নতুনদের জন্য পোস্ট রাইটিং গাইডলাইন

চলুন এ পর্যায়ে আমরা দেখবো কিভাবে কোয়ালিটি মেইনটিন্যান্স করে একটি আর্টিকেল লিখে জমা দিতে হয়। নির্ধারিত আর্টিকেল অবশ্যই নিচের নিয়মগুলো অনুসরণ করে লিখতে হবে। অন্যথায় আপনার লেখা প্রকাশ করা হবে না। সুতরাং নিয়মের দিকে বিশেষ নজর দিন।

১. পোস্ট লেখার সময় নিজেকে পাঠক হিসেবে কল্পনা করুন। যে বিষয়ে কনটেন্ট লিখছেন সেই বিষয়ে আপনার চাহিদা কেমন হতে পারে? এমনভাবে পোস্ট উপস্থাপন করার চেষ্টা করুন যাতে করে প্রত্যক্ষভাবে আপনি বলছেন কেউ শুনছে এমনটা মনে হয়।

২. পোস্ট শুরু করার সময় পোস্টের টাইটেল তথা শিরোনাম প্রথম বাক্যে রাখবেন। উদাহরণস্বরূপ – ধরুন আপনি একটি পোস্ট লিখছেন “আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট এই টপিকের উপর ভিত্তি করে। এখন পোস্ট লেখার সময় শুরুতে আপনি এভাবে লিখতে পারেন –

আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট নামে একটি গুরুত্বপূর্ণ টপিক নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি, কেমন আছেন বলুন তো!

অথবা,

প্রিয় বন্ধুরা আপনারা নিশ্চয় আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট সংক্রান্ত বিষয়ে অনলাইন অনেক পোস্ট দেখে থাকেন। সবগুলো সোর্সই কি আমাদের সঠিক তথ্য সরবরাহ করে? চলুন আজকে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিই এমন একটি ওয়েবসাইটের সাথে যেখানে পোস্ট লিখে আপনি প্রতি মাসে…

অথবা,

আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট – বাংলাদেশের সেরা পোস্ট রাইটিং প্ল্যাটফর্ম যেখানে আর্টিকেল লিখে আপনি প্রতি মাসে ন্যূনতম ৫০০০ টাকা থেকে শুরু করে ২০০০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন। চলুন এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাক…

[নোট: এগুলো ডেমো হিসেবে দেখানো হয়েছে। সুতরাং পোস্টে এগুলো ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন]

৩. পোস্টের সূচনা অংশ থাকবে ৪-৮ লাইনের মধ্যে। আর এই ভূমিকা অংশে পোস্টের ফোকাস কিওয়ার্ড আপনাকে ২ বার রাখতে হবে।

আরো পড়ে নিনঃ কিভাবে এসইও ফ্রেন্ডলি ব্লগ পোস্ট লিখতে হয়?

৪. মূল টাইটেল অথবা মূল টাইটেলকে ফোকাস করে এমন একটি টপিক অবশ্যই ভূমিকা অংশের পর শিরোনাম হিসেব যুক্ত করে পোস্ট লিখতে হবে। উদাহরণসরূপ – “আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট ” এই টপিকে পোস্ট লেখার সময় ভূমিকা অংশ শেষ করে হেডিং হিসেবে দিতে পারেন –

আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট – সেরা পোস্ট রাইটিং প্ল্যাটফর্ম

অথবা,

আর্টিকেল লিখে আয় করুন পেমেন্ট নিন বিকাশে – নিত্যটিউন থেকে

অথবা,

আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট – আয় করতে পারবেন আপনিও

[নোট: এগুলো ডেমো হিসেবে দেখানো হয়েছে। সুতরাং পোস্টে এগুলো ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন]

৫. পোস্টের মধ্যে “বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন-উত্তর সমূহ” নামে একটি অংশ যুক্ত করতে হবে। অতপর এর উপর ভিত্তি করে আপনাকে পোস্ট সংশ্লিষ্ট ২-৪ লাইন কনটেন্ট লিখতে হবে (প্রশ্ন এবং উত্তর আকারে লিখবেন)। উদাহরণস্বরূপ – ধরুন আপনি পোস্ট লিখছেন “আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট ” এই সম্পর্কে। এখন আপনি লিখতে পারেন –

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন উত্তর সমূহ (হেডিং আকারে দিবেন)

প্রিয় পাঠক, এতক্ষণ আপনারা “আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট ” সম্পর্কে অনেক জ্ঞানগর্ভ তথ্য পেয়েছেন। আশা করছি এই তথ্যগুলো আপনার অনলাইন ইনকামে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। চলুন এখন আমরা আর্টিকেল লিখে আয় এবং পেমেন্ট বিকাশে  এই সংক্রান্ত কিছু জরুরী প্রশ্ন-উত্তর  দেখে নিই

অথবা,

“আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট ” নিয়ে আপনার মনের হাজারো প্রশ্নের অবসান ঘটেছে নিশ্চয়? আপনার মনের সেই প্রশ্নগুলোকে আরো জোড়ালো করতে চলুন এবার আমরা কিভাবে আর্টিকেল লিখে বিকাশে পেমেন্ট নিতে হয় এ সংক্রান্ত আরো কিছু প্রশ্ন উত্তর দেখে আসি

অথবা,

অনলাইন জগতে কনটেন্ট রাইটিং বহুল ডিমান্ডিং একটি আয়ের ক্ষেত্র। অনেকেই আর্টিকেল লিখে করছেন এবং আয় করা সেই টাকা বিকাশে নিচ্ছেন। আপনিও পারবেন “আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট ” নিতে বিশ্বস্ত কোন ওয়েবসাইট থেকে। চলুন এ সম্পর্কে জরুরী কিছু প্রশ্ন ও উত্তর জেনে নেওয়া যাক

অতপর, আপনাকে পোস্ট সংক্রান্ত তথা পোস্টকে ফোকাস করে এমন কয়েকটি প্রশ্ন ও তাদের উত্তর যুক্ত করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ-

কিভাবে আর্টিকেল লিখে আয় করা যায়?

এখানে আপনার মূল্যবান উত্তরটি দিন…

অথবা,

কনটেন্ট রাইটিং করে কি ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব?

এখানে আপনার মূল্যবান উত্তরটি দিন…

অথবা,

আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশ পেমেন্ট – পোস্ট লিখে আয় করতে আমিও কি পারবো?

এখানে আপনার মূল্যবান উত্তরটি দিন…

[নোট: এগুলো ডেমো হিসেবে দেখানো হয়েছে। সুতরাং পোস্টে এগুলো ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন]

৬. অতপর সবশেষে আপনাকে পোস্টের শেষ বক্তব্য/মন্তব্য/পরিশেষ/সর্বোপরি/ বক্তব্য লিখে পোস্টের ইতি টানতে হবে। সূচনা বক্তব্যের মত এখানেও ৪-৮ লাইন এ কনটেন্ট লিখতে হবে। 

আপনার জন্য রিকমেন্ডেড পোস্ট

আর্টিকেল লিখে আয় পেমেন্ট বিকাশে – সেরা পোস্ট রাইটিং প্ল্যাটফর্ম

কনটেন্ট রাইটিং কি? কনটেন্ট রাইটিং করে প্রতি মাসে আয় করুন হাজার হাজার টাকা

নিত্যটিউন আইটি সেবা সমূহ দেখে নিন এক পলকে

ট্রেনিং গ্রহন করে লুফে নিন হাজার হাজার টাকা

তারপর?

মন্তব্য

ব্যাস! আপনার কাজ শেষ, আপনাকে আর কিছুই করতে হবে না। আমাদেরকে পাঠিয়ে দিন। সব ঠিকঠাক থাকলে খুব দ্রুতই তা পাবলিশ করা হবে। পাবলিশ করার অনধিক ৩০ মিনিটের মধ্যে আপনার দেওয়া পেমেন্ট নাম্বারে টাকা পাঠানো হবে। কোন প্রশ্ন? সরাসরি লাইভ চ্যাটে কথা বলুন। নিত্যটিউন রাইটার নির্দেশনা সম্পর্কিত কোন বিষয়ে আপনার মন্তব্য থাকলে তা কমেন্ট করেও জানাতে পারেন। ধন্যবাদ।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আমাদের পোস্ট সংক্রান্ত সকল নীতিমালা অনুসরণ করলেই কেবলমাত্র আপনার পোস্ট প্রকাশ করা হবে। কোনরূপ এআই (আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স) এর ব্যবাহর, কপিরাইট, অন্য কাউকে হেয় প্রতিপন্ন করা, ঘৃনাত্মক, হুমকি প্রদান মূলক বক্তব্য আপনার পোস্টে পাওয়া গেলে আপনাকে সরাসরি বাতিল করা হবে। 

Author

This Post Has 2 Comments

  1. Restore CBD Gummies Buy Now

    I do agree with all the ideas you have introduced on your post They are very convincing and will definitely work Still the posts are very short for newbies May just you please prolong them a little from subsequent time Thank you for the post

    1. nTune

      Thanks for your valuable comments. We will do that inshaAllah.

Leave a Reply